YouTube চ্যানেলের ভিডিওতে ভিউজ বাড়ানোর উপায়?

আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ। অনেক সময় দেখা যায় ইউটিউব চ্যানেল ভিউ আসে না। ইউটিউব চ্যানেল ক্রিয়েট করে মানুষ টাকা ইনকাম করার জন্য। এবং ইউটিউব এর ইনকাম ভিউজ এর উপরে নির্ভর করে। আর যদি ইউটিউব চ্যানেলে ভিউ না আসে তাহলে কিভাবে ইনকাম হবে?

এরকম প্রশ্ন হাজার হাজার রয়েছে। অনেক কারনেই আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে ভিউজ আসতে পারে না। সেটা নির্ভর করে নিজের কাজের উপর। আপনি যদি ভালোভাবে কাজ করতে পারেন তাহলে অবশ্য ভিউজ আসবে। আজকে আমরা জানবো কি কারনে ভিউজ আসেনা? ভিউজ কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল আসবে? এ বিষয়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আর্টিকেল এর ভূমিকা

বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্ল্যাটফর্ম এর একটি প্লাটফর্ম এর নাম হলো ইউটিউব। গুগোল এর পরে ইউটিউব এর স্থান। এই ইউটিউবে প্রতিদিন প্রায় 500 মিলিয়ন এর উপরে মানুষ ভিউ করে। এবং এই ইউটিউব চ্যানেলে প্রায় প্রতিনিয়ত মানুষেরা চ্যানেল তৈরি করে ভিডিও আপলোড করে।এবং দিনদিন ইউটিউব এর চাহিদা মানুষের প্রচুর পরিমাণে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইউটিউব চ্যানেলে এমন কোন বিষয় নেই জানিয়ে ভিডিও করা নেই।

আপনার প্রয়োজন অপরের জন্য প্রায় সকল ধরনের ভিডিও ইউটিউবে রয়েছে। ইউটিউব চ্যানেল বিশ্বের অন্যতম একটি প্ল্যাটফর্ম। যেটাতে কিনা সকল ধরনের ভিডিও এর জন্য সেরা একটি প্লাটফ্রম। এই প্লাটফর্মে আমরা অনেকেই অনেক সময় ব্যয় করে থাকি। আর মজার ব্যাপার হলো ইউটিউব থেকে বর্তমানে টাকা ইনকাম করার সুযোগ রয়েছে।

সেটা প্রায় ইউটিউব চ্যানেল শুরু থেকেই ছিল। এখনো পর্যন্ত রয়েছে আশা করি ভবিষ্যতেও থাকবে। তো ইউটিউবে অনেকেই আসে টাকা ইনকাম করার উদ্দেশ্যে। আবার অনেকেই শখ করে একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে থাকেন। এখন আপনি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করেছেন ইনকাম করার উদ্দেশ্যে। কিন্তু ইনকাম হবে আপনার ভিডিও আপলোড করে ভিউজ এর উপর নির্ভর করে।

এখন যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে ভিউজ না আসে তাহলে ইনকামের কথা তো অনেক দূরে থাক। আপনার শুরুটাই অনেক কষ্টকর হয়ে যাবে। তবে একটা কথা স্পষ্ট ভাবে মনে রাখবেন কোন কাজই পরিশ্রম ছাড়া কোন কাজ নিজের ইচ্ছেশক্তি ছাড়া সম্ভব নয়। এটা ঠিক ইউটিউব চ্যানেল শুরুতে আপনার অনেক পরিশ্রম করতে হবে। তাহলে একদিন আপনি সফলতা অর্জন করতে পারবেন ইউটিউব থেকে।

যাক মূল কথায় যায়, এখন আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে কোনভাবে ভিউ জানতে পারছেন না। সাধারণত ইউটিউব ভিউজ না আসার অনেক ধরনের কারণ রয়েছে। এই কারণগুলো কী এবং এর থেকে সমাধান পাওয়ার উপায় কি? এই বিষয়ে হয়তো আপনি একবার হলেও ট্রাই করেছেন। তো প্রিয় বন্ধুরা আজকেরে আর্টিকেল থেকে আমরা জানতে চলেছি,,,,

ইউটিউব চ্যানেলে কেন ভিউজ আসেনা? কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলের ভিউ আসবে? এক কথায় ইউটিউব চ্যানেল ভিউজ কিভাবে সঠিকভাবে আসে এবং আপনার চ্যানেল আসবে? এই বিষয়গুলো নিয়ে এটুজেড আলোচনা করব। যেগুলো আপনারা অল্প সময়ে যে নেই আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ আনতে সক্ষম হবেন আশা করি।

তাই আর্টিকেল এর শুরুতেই অনুরোধ করবো আর্টিকেলটির শেষ পর্যন্ত এই আর্টিকেলটি পড়ার জন্য। কারণ এ আর্টিকেলে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব ইউটিউব চ্যানেলের ভিউ নিয়ে। যেটা আপনারা এই আর্টিকেল থেকে খুব সহজেই জেনে যাবেন। তা অবশ্যই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। আর কথা না বাড়িয়ে চলুন এবার মূল টিউটোরিয়াল শুরু করা যাক।

ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ আসেনা কেন?

আপনার ইউটিউবে ভিউজ না আসার অনেকগুলো কারণ রয়েছে। আপনি হয়তো আপনার ইউটিউব চ্যানেলের কোথাও ত্রুটি রেখেছেন। এ কারণেই আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ আসেনা। ভিউজ আনার জন্য আপনাকে বেশ কিছু নিয়ম জানতে হবে। যেখান থেকে আপনারা বুঝতে পারবেন কেন ইউটিউবে ভিউ আসে না? এবং কিভাবে ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ আসবে।

আগেই বলেছি ইউটিউব চ্যানেলে ভিউ না আসার অনেক কারণ রয়েছে। আপনাকে প্রথমেই কারণ গুলো জানতে হবে। এবং এর সমাধান আপনাকেই করতে হবে। কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করলে অবশ্য আপনার ইউটিউব চ্যানেল ভিউজ আসতে সক্ষম হবে। এখন আমরা এমন কিছু পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করব। যে পদ্ধতি মেনে কাজ করলে অবশ্যই আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ আসবে।

ইউটিউব চ্যানেলে ভিউজ আনার পদ্ধতি সমূহ?

আপনার ভিডিওতে টাইটেল নির্বাচনঃ আপনি হয়তো আপনার ইউটিউব চ্যানেলের টাইটেল সঠিকভাবে দিতে পারেন না। অনেক ইউটিউবাররা রয়েছে যারা ভিডিও একরকম এবং তাদের টাইটেল হয় আরেকরকম। একারণেই দেখা যায় অনেক সময় ভিউজ আসেনা।মনে রাখবেন আপনার ভিডিও অনুযায়ী আপনার টাইটেল দেওয়া উচিত।

আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ আনতে পারে টাইটেল। সঠিকভাবে টাইটেল না দিলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিউজ কখনোই আসবেনা। ধরুন আপনার ভিডিওটি ফানি রিলেটেড। এখন আপনি টাইটেল দিলেন রান্না রিলেটেড। তাহলে কিন্তু কখনই আপনার ইউটিউব চ্যানেল মানুষের কাছে শো করবে না।যাতে আপনার চ্যানেলের নাম টাইটেল ভিডিও লিখে সার্চ করুক না কেন?

আপনার ভিডিও গুলো তাদের কাছে শো করবে না। এবং সেখান থেকে আপনি ভিউজ পাবেন না। তাই শুরুতেই আপনার ভিডিওর টাইটেল ঠিক করুন। টাইটেলটি আপনি ইংলিশে লিখলে ভাল হয়। যদি আপনার ভিডিওটি টাইটেল বাংলাতে লিখতে চান তাহলে সেটাও লিখতে পারেন। তবে ইংলিশ এবং বাংলা মিলে লেখা সবচেয়ে ভালো। তাহলে অবশ্যই আপনার ভিডিওটি মানুষ সার্চ করে খুব সহজেই পেয়ে যাবে। এবং এই টাইটেল এর জন্য আপনার ইউটিউব চ্যানেল অবশ্যই আসতে সক্ষম হবে।

সঠিকভাবে ডেসক্রিপশন নির্বাচনঃ অনেক ইউটিউবাররা রয়েছে যারা ভিডিও ডেসক্রিপশনে কিছু লেখে না। তবে আপনি কি জানেন আপনার এর কারণে আসেনা। আপনার ভিডিও ভিউ জানার জন্য দেস্ক্রিপশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আপনার ডেসক্রিপশনে অবশ্যই কমপক্ষে 300 শব্দের উপরে লেখালেখি করবেন।

এবং ডেসক্রিপশন এ আপনার ভিডিও রিলেটেড সম্পর্কিত কিছু তথ্য দিয়ে দিবেন। যাতে করে একজন ভিউয়ার খুব সহজে বুঝতে পারে ভিডিওটি কোন রিলেটেড। এবং তার উপকার হবে কিনা সেটাও ডিসক্রিপশন থেকে বুঝতে পারবে। তাছাড়া আপনার ডেসক্রিপশনে আপনার সাথে যোগাযোগ করার বিভিন্ন সোশ্যাল লিংক শেয়ার করবেন।

এবং আপনার ইউটিউব চ্যানেলের অন্যান্য ভিডিওগুলি সুন্দরভাবে সাজিয়ে আপনার description-এ দিবেন। কম করে হলেও দুই থেকে তিনশ শব্দের ভিতর ডেসক্রিপশন শেষ করে দিবেন। আপনার ইউটিউব চ্যানেলের অবশ্যই তারপর থেকে ভিউজ আসবে আশা করি। ভিউজ আসার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আপনার ভিডিও ডেসক্রিপশন।

ট্যাগ ব্যবহার করুনঃ ট্যাগ জিনিসটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও গুলো মানুষের কাছে দেখানোর জন্য। আপনি যদি এমন ট্যাগ ব্যবহার করেন যে লেখাটি কেউ ইউটিউবে সার্চ করে। তাহলে কি হবে জানেন আপনার ভিডিওটি তাদের কাছে সবার আগে শো করবে। তাহলে তো বুঝতে পারছেন ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে ট্যাগ ব্যবহার করা অতি জরুরী।

তাই অবশ্যই আপনার ভিডিওতে ট্যাগ ব্যবহার করবেন। তাহলে এমনিতেই আপনার ভিডিওতে ভিউজ আসতে থাকবে।বিভিন্ন টুল রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা খুব সহজেই ট্যাগ বের করতে পারবেন। আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওর জন্য। ইউটিউব চ্যানেলে ভিউ জানার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে ট্যাগ। অবশ্যই আপনার ভিডিওতে চেক ব্যবহার করবেন।

থাম্বেল ব্যবহারঃ অনেকে হয়তো ইউটিউব চ্যানেলের থাম্বেল ব্যবহার করে। কিন্তু বেশিরভাগ লোক যে ভুল কাজটি করে সেটা হল প্রফেশনাল ভাবে থামলেন হয়না। আর এই কারনেই আপনার ভিউজ ভিডিওতে আসেনা। কারণ আপনার ভিডিওটি বেশিরভাগ নজর কাড়ে থাম্বেল। থাম্বেল আপনার ভিডিওর শুরুতে সবাই দেখতে পারে।

অনেক লোক আছে যারা শুধু ভিডিও থাম্বেল দেখেই ভিডিও প্লে করে। এ কারণে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে অবশ্যই থাম্বেল ব্যবহার করবেন।তবে আপনার মতো করে থাম্বেল ব্যবহার করলে হবে না। আপনার থাম্বেল অবশ্যই ভিডিও রিলেটেড প্রফেশনাল ভাবে তৈরি করতে হবে। এবং তারপর আপনার ইউটিউব এর ভিডিও তে থাম্বেল টি যোগ করতে হবে।

তাহলে আশাকরি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের নিউজ আসবে। ইউটিউবের ভিডিওতে ভিউ জানার জন্য অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ভিডিওও থাম্বেল। তাই অবশ্যই আপনার ইউটিউব চ্যানেলে প্রফেশনাল ভাবে থাম্বেল ক্রিয়েট করে যোগ করবেন। তাহলে অবশ্যই অবশ্যই আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে ভিউ আসতে সক্ষম হবেই।

description-এ হ্যাশট্যাগ ব্যবহারঃ হ্যাশট্যাগ আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করলে অবশ্যই ভিডিওতে ভিউ আসবে। এর জন্য অবশ্যই আপনার ডেসক্রিপশনে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করতে হবে। তবে ইচ্ছামত হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করলে কিন্তু হবে না। সেই রিলেটেড কিবোর্ড আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করবেন যেটা, দৈনিক মানুষেরা ইউটিউবে সার্চ করে থাকে।যদি এই ধরনের হ্যাশট্যাগ আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করতে পারেন তাহলে,

অবশ্যই অবশ্যই আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে ভিউ আসবে। অনেক বড় ইউটিউবার রাও এই কাজটি প্রতিনিয়ত করে থাকে। এবং ইউটিউবে ভিউজ আনতে সক্ষম এর অন্যতম একটি ভূমিকা পালন করে হ্যাশট্যাগ। তা অবশ্যই আপনার ইউটিউব চ্যানেলে সঠিকভাবে হ্যাশট্যাগ খুঁজে বের করবেন। এবং যে রিলেটেড কিবোর্ড সার্চ করে ইউটিউবে সেটা আপনার ভিডিওতে দিবেন। এখন প্রশ্ন আসতে পারে হ্যাশট্যাগ কোথায় দিতে হয়? আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করবেন। আর এতে করে আশা করি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে ভিউ আসবে।

সঠিকভাবে ভিডিও নির্বাচনঃ আপনি যদি আপনার ইচ্ছামত ভিডিও গুলো তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করেন তাহলে, কখনোই আপনার ভিডিওতে ভিউ আসবে না। কারণ হলো ভিডিওটি হয়তো আপনার পছন্দ হতে পারে কিন্তু অন্য কেউ এটা না পছন্দ করতে পারে। আপনাকে সঠিকভাবে ভিডিও নির্বাচন করতে হবে। এখন প্রশ্ন আসতে পারে কিভাবে সঠিক ভিডিও নির্ণয়?

দেখবেন ইউটিউবে কোন রিলেটেড ভিডিও মানুষ বেশি পছন্দ করে। যে ভিডিও গুলো মানুষের বেশি প্রয়োজন দরকারই হবে এগুলো ব্যতীত কখনোই আপলোড করবেন না। কারণ হলো অপ্রয়োজনীয়' ভিডিও কেবি দেখতে পছন্দ করেনা। হয়তো আপনি নিজেও পছন্দ করেন না। তাই ইউটিউব থেকে আগে দেখে নিবেন কোন ভিডিও মানুষের বেশি প্রয়োজন। এবং সেই ধরনের ভিডিও গুলো আপলোড করার চেষ্টা করবেন সবসময়।

গুগলে অনেক টুল রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে দেখা যায় কোন ভিডিও মানুষের বেশি প্রয়োজন হয়। কোন ভিডিও মানুষ বেশি সার্চ করে ইউটিউবে।এই ধরনের অনেক ভুল রয়েছে সেগুলো আপনি ব্যবহার করে খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন কোন ধরনের ভিডিও মানুষের প্রয়োজন। ঠিক এভাবে করেই আপনারা সঠিক ভিডিও নির্বাচন করে ভিডিও তৈরি করবেন। এবং সময়মত ভিডিওটি আপলোড করে দিবেন। তাহলে আশাকরি আপনার ভিডিওতে অবশ্যই ভিউজ আসতে সক্ষম।

তুই বন্ধু রা এতক্ষণ যে পদ্ধতি গুলো নিয়ে আমরা আলোচনা করলাম।এই পদ্ধতি অবলম্বন করে আপনারা খুব সহজে আপনার ইউটিউবের ভিডিওতে ভিউ জানতে সক্ষম হবেন। তাই যদি আপনার ভিডিওতে ভিউজ আনতে হয় তাহলে অবশ্যই উপরের পদ্ধতিগুলোর অনুসরণ করবেন। এই পদ্ধতিগুলো প্রায় সকল ইউটিউবাররা করে থাকেন ভিউ জানার জন্য। এমনকি অনেক বড় বড় ইউটিউবার তারা এই পদ্ধতি অবলম্বন করেই অনেক দূরে এগিয়ে গিয়েছে।

তাই যদি আপনার ভিডিওতে ভিউজ না আসে তাহলে অবশ্যই উপরের পদ্ধতিগুলোর অবলম্বন করবেন। তাহলে আশা করা যায় আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতে ভিউজ আসতে কোন সমস্যা হবে না। তবে কখনো মানুষের অপ্রয়োজনীয়' এবং মানুষ যেন খারাপ মনে করে এই ধরনের ভিডিও আপলোড করবেন না। সব সময় সৎ পরিশ্রমী এবং সততার সাথে কাজ করতে থাকুন। তাহলে ইনশাল্লাহ আপনার ভিডিওতে ভিউজ আসবেই।

আর্টিকেল এর শেষ কথা

এতক্ষণ আর্টিকেলটির ধৈর্য সহকারে পড়ার জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আজকে আমরা ইউটিউব এর ভিডিও কিভাবে ভিউ বাড়ানো যায় এ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। যদি আর্টিকেল সম্পর্কিত কোনো প্রশ্ন অথবা মতামত থাকে তাহলে কমেন্ট করবেন। আমি অবশ্যই আপনাদের কমেন্টের রিপ্লে দেওয়ার চেষ্টা করব। আর্টিকেলটি এ পর্যন্তই। পরিশেষে সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন এবং নিরাপদে থাকুন। দেখা হবে আবার অন্য কোন আর্টিকেলে আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ।

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles
Recent Articles