ফেসবুক সম্পর্কে আমাদের অজানা কিছু তথ্য ?

Earning : ৳1.800

এই সাইট আমরা নিত্যদিন প্রতি মুহূর্তে ব্যবহার করে চলেছি৷ অথচ ফেসবুক সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য আছে যা আমরা জানি না৷ এই যেমন ২০০৯ সালে চিনে ফেসবুক ব্যবহারকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল৷ জানতেন কি এটা? এরকম বেশ কয়েকটি অজানা তথ্যের সুলুক সন্ধান দেওয়া হল যা অবাক করবে আপনাকেও৷

আমাদের চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করুন

বছর চোদ্দ আগে নেট দুনিয়ায় বিপ্লব এনেছিল বহুল ব্যবহৃত সাইটটি৷ সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বেড়েছে চাহিদা৷ কিন্তু, রেহাই মেলেনি, পড়তে হয়েছে কড়া সমালোচনার মুখে৷ তবে, সেজন্য ভাটা পড়েনি জনপ্রিয়তায়৷ ইউজারদের চাহিদা মেটাতে সংস্থা এনেছে আপডেটেড ফিচারসগুলি৷ যা আবারও আকর্ষণ করেছে ইউজারদের৷

১) ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকেরবার্গ৷ কিন্তু অনেকেই হয়ত জানেন না, মার্ক জুকেরবার্গকে ফেসবুক থেকে কখনই ব্লক করা সম্ভব নয়৷

২) বহু মানুষের মৃত্যুর জন্য দায়ী ফেসবুকের ‘আনফ্রেন্ড’ অপসনটি৷

৩) ব্যবহারকারীকে নিজের পছন্দের ভাষা ব্যবহারের সুযোগ দিচ্ছে সাইটটি৷

৪) ফেসবুকে এখনও প্রায় ৩০ মিলিয়ন মৃত ইউজার অ্যাকাউন্ট রয়েছে৷

৫) ‘ফেসবুকে অন হলেই এক চড়৷’ এমনই অদ্ভুত নির্দেশ দিয়েছিলেন এক ব্লগার৷ তিনি নাকি কাজটির জন্য এক মহিলাকে হায়ারও করেছিলেন৷

৬) প্রত্যেকদিন প্রায় ৬০০,০০০ লাখ ফেসবুক অ্যাকাউন্টে হ্যাকিংয়ে্র চেষ্টা হয়ে থাকে৷

৭) লগ-আউটের পরেও ফেসবুকে থেকে যায় হিস্ট্রি৷ ইউজার প্রতিদিন কোন সাইটগুলিতে ভিজিট করছেন, তা সবই থেকে যায় ফেসবুকে৷

৮) ফেসবুকে স্ট্যাটাস আপলোড করার ট্রেন্ড বহুদিনের৷ কিন্তু, জানেন কি প্রতি তিনজনের মধ্যে একজন ফেসবুক ভিজিট করার পর নিজের জীবন নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন৷

৯) ফেসবুকে ফেক অ্যাকাউন্টকে ঘিরে ঘটেছিল আরও এক মজার ঘটনা৷ যেখানে এক মহিলাকে জেলবন্দী করা হয় ২০ মিনিটের জন্য৷ তার অপরাধ, ভুয়ো অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিজেই নিজের অ্যাকাউন্টে অপমানজনক ম্যাসেজ পাঠিয়েছিলেন৷

১০) এছাড়াও ফেসবুকে বিভিন্ন রকমের কোড থাকে যেগুলো ব্যবহার করে আপনি অনেক সুন্দর সুন্দর কমেন্ট করতে পারেন  । 

১১) শুধুমাত্র ফেসবুকে ব্লক করার কারণে কয়েক লক্ষ মানুষ এখন পর্যন্ত আত্মহত্যা করেছে । 

১২) আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ফেসবুক আপনার আপনজনদের জায়গাটি ছিনিয়ে নিতে যাচ্ছে। ভার্চুয়াল রিয়েলিটির মাধ্যমে ফেসবুক কোম্পানি তৈরি করতে যাচ্ছে এক বিস্ময়কর আবিষ্কার যা থেকে আপনি যোগাযোগ করতে পারেন আপনার মৃত আপনজনদের সাথে । তবে এটি অনেক ব্যয়বহুল । 

১৩) ফেসবুকের জন্য প্রতিদিন তৈরি হয় লক্ষ লক্ষ সম্পর্ক আবার পক্ষান্তরে ভেঙ্গে যাচ্ছে লক্ষ লক্ষ সম্পর্ক হারিয়ে যাচ্ছে অনেকের জীবন থেকে তাদের আপনজন । 

১৪) একমাত্র ফেসবুকের কারণেই দুটি ভিন্ন ভিন্ন দেশের দুজন ছেলে মেয়ের মধ্যে ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি হয় এবং পরবর্তীতে তারা বিয়েও পর্যন্ত করে। 

১৫) আপনি কি জানেন কোনো একজন হ্যাকার যদি আপনার ফেসবুক একাউন্টে হ্যাক করে তাহলে সেই অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করে আপনার ফোনের যাবতীয় তথ্য সে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই তার আয়ত্তে নিতে পারে।  যেমন ধরুন আপনার গ্যালারির পিক, আপনার কন্টাক্ট লিস্টের সকল নাম্বার, এমনকি আপনার পুরো ফোনের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে। 

আমি  জানি  এখানে  কিছু  কিছু  লেখা আছে যেগুলো আপনাদের বিশ্বাস হবে  না কিন্তু বিশ্বাস না হলেও এগুলোই সত্যি । যা জেনে রাখা আপনাদের জন্য  আবশ্যক । 

ধন্যবাদ আর্টিকেলটি পড়ার জন্য..

Comments

You must be logged in to post a comment.

লেখক সম্পর্কেঃ

Online marketing expert, data analyst specialist at fiver & freelancer, Usa gmail, voice mail,vpn creator Article writer notre dame college history club

আপনার জন্য আরও লেখা: