সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আয়ের পাঁচটি উপায়

Earning : ৳0.000

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠকগন,আশা করি সবাই ভালো আছেন, আলহামদুলিল্লাহ 

আমাদের চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করুন

আপনারা টাইটেল দেখে হয়তো বুঝতে পারছেন, এই আর্টিকেলটা সোশ্যাল মিডিয়া অনলাইন ইনকাম সম্পৃক্ত। 

সোশ্যাল মিডিয়া শুধু যোগাযোগের জন্য নয়। সোশ্যাল মিডিয়া ইনকামের ভিবিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিয়ে এসেছে। বুড়ো থেকে তরুণ সবাই এখন ফেসবুক, ইউটিউব, স্নাপচট,টুইটার ও হোয়াটসঅ্যাপ ইত্যাদি সাথে পরিচিত। এই সাইটগুলো শুধুমাত্র  বিনোদনের উৎস নয়,আয়ের উৎসও। আপনি শুনে হয়তো অভাক হচ্ছেন। 

ভিবিন্ন মনিটাইজেশন অ্যাপ বা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ঘরে বসে অনলাইন উপার্জন সম্ভব। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ইনকাম করতে, আপনাকে ডিগ্রি পাসও করা লাগবে না।শুধুমাত্র একটা স্মার্টফোন আর ইন্টারনেট সংযোগ থাকলে চলবে। 

আজকে আমি আপনাদের মাঝে এর সোশ্যাল মিডিয়া ইনকাম পাঁচটি সাইট সম্পর্কে বলবো। 

১.ফেসবুক থেকে ইনকামঃ

ফেসবুকে কনটেন্ট তৈরি করে ফেসবুকের মাধ্যমে  অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। ফেসবুক ব্যবহারকারিরা তাদের নিজস্ব পেজ তৈরি করে ইনকাম করতে পারবেন। পেজের মাধ্যমে নিজস্ব বিডিও, কনটেন্ট ভিবিন্ন বিষয়বস্তু শেয়ারের মাধ্যমে  ইনকাম।

আপনি যদি শেয়ার করার সামগ্রীর মাধ্যমে ভালো ভিউ,লাইক, কমেন্ট এবং ফেসবুক মনিটাইজেশন পান। তবে আপনি এই প্লাটফর্ম থেকে ভালো ইনকাম করতে পারবেন। আপনি যেমন ফেসবুকে ভিবিন্ন বিডিও দেখেন, এই বিডিওগুলো যারা তৈরি করেছে,তারা এখন এখান থেকে ইনকাম করছে।

২.স্নাপচাট থেকে ইনকামঃ

স্নাপচটে বিষয়বস্তু তৈরি এবং শেয়ার করে,বিশ্বব্যাপী কনটেন্ট ক্রিয়েটাররা প্রতিদিন ১মিলিয়ন( আনুমানিক ৮.৫৮ কোটির টাকা) উপার্জন করছে। এই অ্যাপে উপার্জন করার জন্য, ব্যবহারকারিরা কেবল মাত্র তাদের স্মার্ট ফোন ক্যামেরার ব্যবহার সামগ্রী শেয়ার করতে হবে।

ব্যবহারকারিরা স্পলাইটের অ্যাপ দ্বারা তৈরি সামগ্রী বা স্নাপ জমা দিয়ে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। 

৩.ইউটিউব থেকে ইনকামঃ

ইউটিউব গত বছর ইউটিউব শর্টস নামে একটা বিডিও প্লাটফর্ম চালু করেছে। কনটেন্ট ক্রিয়েটরা এখন তাদের ছোট বিডিও ইউটিউব শর্টস এ শেয়ার করতে পারবেন। এছাড়া আপনি ভিবিন্ন কোম্পানির প্রডাক্ত, ওয়েবসাইট, অ্যাপস, প্রচারের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন।

তার জন্য আপনার একটা চ্যানেল থাকতে হবে। এছাড়াও YouTube চ্যানেলে 12 মাসে কমপক্ষে ৪ হাজার ঘন্টা ওয়াচ-টাইম এবং 1,000 সাবস্ক্রাইবার থাকবে তারাও আয় করতে পারবে চ্যানেল মনেটাইজ এর মাধ্যমে।

৪.টুইটার থেকে ইনকামঃ

টুইটার ব্যবহারকারিরা টুইটার অ্যাপস থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ইনকাম করার জন্য আপনাকে একটা টিপস এন্ড টিক্স ব্যায়াম একাউন্ট খুলতে হবে,সেটার মাধ্যমে বিডিও আপলোড করে ইনকাম করতে পারবেন। সেই সাথে বিডিও মাধ্যমে ভিবিন্ন কোম্পানির অ্যাফিলিয়েট লিংক যুক্ত করে ইনকাম করতে পারবেন। 

৫.ইনস্টাগ্রাম থেকে ইনকামঃ

ইনস্টাগ্রামের ইনকামও, ফেসবুক, ইউটিউবর মতোই। বিডিও কনটেন্ট তৈরি করে আপলোড করার পর, নিদিষ্ট পরিমাণ লাইক, ভিউ ফলোয়ার হলে,আপনি ইনকাম করতে পারবেন। তবে এখানে মজার বিষয় ছবি পোস্ট করেও ইনকাম করতে পারবেন। 

কোনো কিছু জানার থাকলে,কমেন্ট করে জানিয়ে দেন। 

নোটঃ আপনি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ইনকাম করতে হলে, অবশ্যই আপনার নিজস্ব তৈরি বিডিও আপলোড করতে হবে। তারপর মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করা লাগবে। মনিটাইজেশন পেলে ইনকাম করতে পারবেন।  অধিকাংশ সোশ্যাল মিডিয়ায় মনিটাইজেশন লাগে।

Related Articles
Comments

You must be logged in to post a comment.