কিভাবে অনলাইন থেকে ৫০০-১০০০ টাকা ইনকাম করবো?

Earning : ৳1.400

অনলাইন আয়: আমরা সবাই চাই কম পরিশ্রম করে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়। এটা করা অসম্ভব কিছু নয়, আপনি চাইলে শারীরিক পরিশ্রম ছাড়াও টাকা ইনকাম করতে পারেন।  প্রশ্ন হলো কি করে অনলাইন থেকে আয় করা যায়?

আমাদের চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করুন

এটা কি এত সহজ? আসলেই কি অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায়? যদি করা যায় তবে কি করতে হবে আমাকে? এই ধরনের প্রশ্ন আমাদের মনে আসতে পারে, 

আর প্রশ্ন আসাটাই স্বাভাবিক।  আজকে আমি আপনাদেরকে বলবো কি করে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করা যায়।

অনলাইন থেকে কি করে ইনকাম করব

এটা খুবই সহজ একটা ব্যাপার যদি আপনি সঠিকভাবে করতে পারেন। আধুনিক বিশ্বে অনেকেই এই অনলাইন ট্রেড  করে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে। তাহলে আমরা কেন পারব না? 

অনলাইন থেকে ইনকাম করতে হলে আপনাকে ইলেকট্রনিক ডিভাইস সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে,  যদি আপনার ল্যাপটপ বা স্মার্টফোন সম্পর্কে জ্ঞান থাকে, তবে আপনি চাইলে অনলাইন থেকে প্রচুর ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে আমাদের সকলের হাতে কিছু না থাকলেও একটা করে স্মার্টফোন তো অবশ্যই আছে বাংলাদেশে একটি পরিসংখ্যানে দেখা গেছে বর্তমান তরুণ সমাজ যে হারে ইন্টারনেট ব্রাউজ করে সেই হারে খাওয়া-দাওয়া পর্যন্ত করছেন না। 

প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার না করে অপব্যবহার করে কিন্ত একটি গ্রুপ আছে যারা রাতদিন অনলাইনে ট্রেড  করে, অনলাইন ব্যবসা করে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে।

আপনি প্রচুর পড়াশোনা করেছেন আপনার অনেকগুলো সার্টিফিকেট আছে কিন্তু আপনি কোন চাকুরি খুঁজে পাচ্ছেন না আপনার কাছে তেমন কোনো পুঁজি বা মুলধনও নেই যে আপনি ব্যবসা করবেন তাহলে আপনি কি করবেন?

একটা প্রশ্ন থেকেই যায়.... হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই, আপনি আপনার মেধাকে কাজে লাগানোর যথেষ্ট সুযোগ আছে।

আপনি আপনার মেধাকে কাজে লাগিয়ে প্রচুর টাকা ইনকাম করার ক্ষমতা রাখেন। আপনি আপনার জ্ঞান বুদ্ধি কে যদি কাজে লাগাতে চান তবে আপনি বিভিন্ন বিষয়ে ব্লগ বা কনটেন্ট লিখে হতে পারেন স্বাবলম্বী এর জন্য আপনি জেআইটি আর্নিং প্রোগ্রামে এড নিজেকে করতে পারেন অথবা

এই (https://blog.jit.com.bd/ref/nazrul481) লিংকে প্রবেশ করে নিজের প্রতিভা বিকাশ করার সাথে সাথে নিজেকে ইনকামের জন্য উপযুক্ত করতে পারেন।

আপনি চাইলে যেকোন একটি সাইটে প্রবেশ করে আপনার যোগ্যতা প্রমাণ করতে পারেন। আপনি যত বেশি লেখালেখি করবেন তত বেশি আপনি চাইলে ইনকাম করতে পারবেন। আসলে অনলাইন প্লাটফর্ম হলো একটি উৎস।

যেখানে আপনাকে গ্রাহকের মনোযোগ আকর্ষণ করার মত যোগ্যতা থাকতে হবে,  তবে একটা বিষয় খেয়াল রাখতে হবে আপনি এমন কোন কিছু লিখবেন না যা সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট কিংবা যার মাধ্যমে প্রতারণার সম্ভাবনা থাকে আপনার লেখার মাধ্যমে কেউ যেন মিথ্যা আশ্বাস না দেখে।

আপনি চাইলে অনলাইন প্রডাক্ট সেল করতে পারেন অথবা অনলাইনে জব করতে পারেন বাংলাদেশের অনেক প্রতিষ্ঠান এখন অনলাইনে জব সার্কুলার চালু করেছে যার মাধ্যমে পার্ট টাইম জব করতে পারেন আপনি যদি ভাল টাইপ-রাইটার হন তবে টাইপিং এর মাধ্যমেই আপনি ইনকাম পারেন।

আপনার যদি সমসাময়িক বিষয় যথেষ্ট  জ্ঞান থাকে তবে আপনি চাইলে উপরের লিংকে প্রবেশ করে নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে পারেন। অনলাইনে যদি আপনি প্রোডাক্ট সেল করেন তবে আপনাকে গ্রাহকের মন রক্ষা করার মতো ক্ষমতা থাকতে হবে।  যদি কাস্টমার আপনার বিপণনে  খুশি থাকে তবে আপনার চাহিদা বাড়তে থাকবে।

মানুষ এখন ঘরে বসেই বিপণন সেল করেছে। আপনি একজন প্রান্তিক ব্যবসায়ী আপনার ব্যবসা কোন ভাবে প্রসার লাভ করবে সে সম্পর্কেও আপনাকে  বুঝতে হবে। যদি আপনার ব্যবসার প্রসার না ঘটে সেই ক্ষেত্রে আপনাকে অনলাইনে মাধ্যমে আপনার পরিচিতি বাড়াতে হবে।

তখন দেখবেন অনেকে আপনার পোডাক্ট রিসিভ করছে। আজকের আমার লেখার উদ্দেশ্য হল যারা ইন্টারনেট সম্পর্কে একটু কম জ্ঞান রাখে তাদের জন্য।  আমার মূল কথা হল আপনি নিজেকে কখনো হতাশ ভাবার কোনো কারণ নেই।

আপনি একটা ছোট ফার্ম দিয়েছেন আপনার ফার্মে তেমন কোন ইনকাম আপনি করতে পারছেন না আপনি অনলাইনে একটি পেইজ ওপেন করেন এবং আপনার ফার্মে বিজ্ঞাপন দেন দেখবেন অনেক কাস্টমার আপনার ফার্মে এসে হাজির।

অনলাইন এমন একটি সাইট যেখানে সবাই চোখ রাখে কোথায় কি হচ্ছে সুতরাং অতি অল্প সময়ের মধ্যে আপনার ব্যবসার প্রসার বৃদ্ধি করতে অনলাইনে কোন বিকল্প নেই।

আপনি যদি আপনার স্মার্টফোনের মাধ্যমে একটি ইউটিউব অথবা ফেইজবুক পেইজ অথবা ব্লগিং করতে পারেন তবে  নিঃসন্দেহে আপনি দৈনিক ৫০০-১০০০  টাকা ইনকাম করতে পারবেন। যখন আপনার ভিডিও অথবা আপনার কোন লেখা পাবলিকের পছন্দ হবে তখন আপনার ইনকামে সুযোগ বৃদ্ধি পেতে থাকবে।

তবে আপনাকে অবশ্যই ধৈর্য ধরতে হবে। একটা বিষয় মনে রাখতে হবে কেউ কিন্তু রাতারাতি বড়লোক হতে পারেনি আর পারবেও না।

একটা উপদেশ হল হঠাৎ করে ইনকাম করার চিন্তা না করে আগে নিজেকে যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে এবং দেখতে হবে কি করে বিভিন্ন সাইটে কাজ করা যায়। যখনই আপনি দেখবেন এবং উপযুক্ত মনে করবেন তখনই আপনি আপনার অনলাইন ট্রেড শুরু করবেন। 

অনলাইন ইনকামের উপর ভুল ধারণা 

অনেকেই হঠাৎ এসে কোন কিছু বুঝতে না পেরে অনলাইন এর উপর জ্ঞান না থাকার কারণেই ইনকাম করতে পারে না। তখন একটা ভুল ধারনা তৈরি হতে থাকে। 

আপনি যে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন সেখানে অবশ্যই কিছু নীতিমালা থাকবে যা আপনাকে অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে। আপনি যদি তা না করেন তবে আপনি যতই চেষ্টা করেন কোন ভাবে ইনকাম করতে পারবেন না।

তখন আপনার কাছে মনে হবে এগুলো সব ভুয়া। তাই নীতিমালাগুলো  অনুসরণ করে কাজ করেন ইনশাআল্লাহ আপনি সফল হবেন।

আমার উদ্দেশ্য হলো যারা হতাশাগ্রস্ত তাদের হতাশার না হয়ে আপনি চেষ্টা করুন দেখবেন আপনি অবশ্যই কোন না কোন একটা ইনকামের উপায় পেয়ে যাবেন ইনশাল্লাহ।

Related Articles
Comments

You must be logged in to post a comment.