ক্যারিয়ার গড়ার টিপস-এন্ড-ট্রিকস।

Earning : ৳0.000

ক্যারিয়ার হলো এক বা একাধিক ধরনের চাকরি যা পেশাগত কারনে একজন ব্যক্তির জীবনের অনেকটুকু সময় জুড়ে থাকে।জীবনের সুনির্দিষ্ট কর্মময় অংশই হলো ক্যারিয়ার।

আমাদের চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করুন

ক্যারিয়ার গড়ার পিছনে কয়েকটি ধাপ থাকে যেমন,

১.নিজেকে জানা।

২.বিভিন্ন ধরনের পেশা,বৃত্তি, চাকরি সম্পর্কে জানা।

৩.লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নির্ধারণ এবং সে অনুযায়ী পরিকল্পনা করা।

৪.চাকরি খোঁজা। 

৫.রৈখিক বিকাশ।

৬.দক্ষতাভিত্তিক বিকাশ। 

৭.গতিময় বা চলমান বিকাশ।

ক্যারিয়ার গড়তে হলে যে ধাপ রংধনুর মতো কাজ করে-বুদ্ধি,অনুসন্ধান, স্থিতি,বজায় রাখা,প্রতিফলন।

ক্যারিয়ার গঠনে আমাদের বিভিন্ন সময়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রয়োজন হয়।যেমন আমি কোন বিভাগে পড়ব অথবা ভবিষ্যতে কোন পেশা বা বৃত্তি বেছে নিব ইত্যাদি।প্রতিটি সিদ্ধান্তই গুরুত্বপূর্ণ।

আমাদের জীবনযাপন শৈলী, মান,উপার্জন,জীবনের গতিময়তা,ইত্যাদি এর মাধ্যমে নির্ধারিতহতে পারে।আমাদের এই ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত শুধু নিজের জীবন নয় পারিবারিক, সামাজিক, জাতীয়, বৈশ্বিক পর্যায়কে ও প্রভাবিত করতে পারে।

যেমন আমরা বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই যদি বিজ্ঞান শাখায় পড়ি এবং এই সংক্রান্ত পেশায় নিযুক্ত হই তবে সমাজ এক রকম হবে,আর বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই যদি মানবিক শাখায় পড়ি ও এই সংক্রান্ত চাকরি করি তাহলে সমাজ হবে আরেক রকম।

আবার যদি বিশ্ববাজারে বিজ্ঞান শাখা থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের জন্য প্রচুর চাকরি থাকে,যা দেশে নেই তখন অনেকে হয়তো ভালো চাকরির সন্ধানে অন্যান্য দেশে চলেযেতে পারে।

আবার পুরো ব্যাপারটাকে উল্টোভাবে ও দেখা যায়।যেমন বর্হিবিশ্বে চাকরির বাজার,দেশে চাকরির পরিস্থিতি, সমাজের চাহিদা ইত্যাদি লক্ষ করে ও অনেক সময় মানুষ শিক্ষার জন্য সুনির্দিষ্ট কোনো ধারা বা শাখা বেছে নেয়।

কাজেই আমরা বিশ্ব,সমাজ, পরিস্থিতি ইত্যাদির উপর নির্ভর করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।আবার আমাদের সিদ্ধান্তের উপর বিশ্ব,সমাজ, পরিস্থিতি ইত্যাদি ও নির্ভরশীল।যেহেতু ক্যারিয়ার সংক্রান্ত সিদ্ধান্তগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, তাই চিন্তা ভাবনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া দরকার।

 ক্যারিয়ার শিক্ষা অনুশীলনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা যখন বিভিন্ন বিষয় থেকে কোনো একটি নির্বাচন করে,তখন স্বাভাবিকভাবেই তার এ সংক্রান্ত বিষয়গুলো শেখার প্রতি আগ্রহ জন্মায়।

ক্যারিয়ার শিক্ষার মাধ্যমে আমরা বুঝতে পারি যা শিখছি তা কিভাবে আমাদের কাজে লাগছে এবং ভবিষ্যতে কাজে লাগবে।এই অনুধাবন শিক্ষার প্রতি আগ্রহ বাড়ায় এবং অনুপ্রেরণা তৈরি করে।

ক্যারিয়ার শিক্ষা আমাদের ভবিষ্য ক্যারিয়ার পরিকল্পনা করতে শেখায়।এটি পাঠ করার মধ্য দিয়ে আমরা শুধু শিক্ষা, বৃত্তি, কর্মক্ষেএের পরিকল্পনাই করি না,বরং বৃহৎ অর্থে জীবনের পরিকল্পনাই করি।

এটি কখনোই স্থির বা নিশ্চিত নয় বরং পরিবর্তনশীল।তবে পরিকল্পনা মানুষকে আত্নবিশ্বাসী করে,কোন পথে কীভাবে লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে তা নির্ধারণ করে।সঠিক পরিকল্পনা অনেক সমস্যার সমাধান দেয়।

তাই আমরা আমাদের ক্যারিয়ার গঠনে সঠিক সিদ্ধান্ত ও পরিকল্পনা বেছে নিব?

Related Articles
Comments

You must be logged in to post a comment.